ঢাকা, আগস্ট ১৭, ২০১৮, ২ ভাদ্র ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৫:১২:৩৮

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

রবি ঠাকুরের ছবি দিয়ে সারার ইনস্টাগ্রামে অভিষেক নেপালকে হারিয়ে শেষ চারে বাংলাদেশের মেয়েরা বুদ্ধিমান মানুষের ৫ বৈশিষ্ট্য পনেরই আগস্টের কাল রাত্রীকে উপজীব্য করে প্রথম মঞ্চ নাটক ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’র উদ্বোধনী মঞ্চায়ন সোমবার পাকিস্তানকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছবি আঁকলেন দেশের ৫০ জন শিল্পী শামির ক্যারিয়ারে বাধা হতে পারেনি স্ত্রীর সঙ্গে শীতল সম্পর্ক বরেণ্য সংগীতশিল্পী রুনা লায়লাকে ‘ফিরোজা বেগম স্মৃতি স্বর্ণপদক ও পুরস্কার’ প্রদান অ্যালোভেরার আট পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তামিমের সেঞ্চুরিতে নয় বছর পর বিদেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ

হার্ট অ্যাটাক হলে দ্রুত কী করবেন?

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | Wednesday, June 6, 2018

হার্ট অ্যাটাক হলে রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নিন। ছবি : সংগৃহীত

হার্ট অ্যাটাকের রোগীকে সঙ্গে সঙ্গে করনারি কেয়ার ইউনিটের (সিসিইউ) সুবিধা রয়েছে, তেমন হাসপাতালে নিতে পারলে সবচেয়ে ভালো। সে ধরনের সুবিধা না থাকলে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে।

আজকাল প্রায় সব মেডিকেল কলেজে করনারি কেয়ার ইউনিট চালু রয়েছে। এ ছাড়া অনেক প্রাইভেট হাসপাতাল ও ক্লিনিকেও এ ধরনের সুবিধাদি রয়েছে।

হার্ট অ্যাটাকের রোগীকে অ্যাটাকের সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিলে রোগীকে অনেকটাই বিপদমুক্ত করা সম্ভব, যদি তাকে ছয় ঘণ্টার মধ্যে স্টেপটোকইনেজ ইনজেকশন দেওয়া যায়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে রোগীর জিহ্বার নিচে একটি নাইট্রোগ্লিসারিন বা অ্যানাজিস্ট ট্যাবলেট দিয়ে নেওয়া যেতে পারে। অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা থাকলে সেটাও দিতে হবে। শুধু ইসিজি করেই প্রাথমিকভাবে হার্ট অ্যাটাক সম্পর্কে সহজেই ধারণা নেওয়া যায়। এ ছাড়া আরো কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে রোগীকে অনেক সময় বিপদমুক্ত করা সম্ভব হতে পারে। হার্ট অ্যাটাক মানেই যে অবধারিত মৃত্যু, তা কিন্তু নয়। অনেকেই হার্ট অ্যাটাকের পর সেরে ওঠেন।

লেখক : ডা. সজল আশফাক,সহযোগী অধ্যাপক, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ।