ঢাকা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, স্থানীয় সময়: ১৫:৫৯:৫৪

শিশুকে শাকসবজি খাওয়ার প্রতি আগ্রহী করতে চান?

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ১২ অগ্রহায়ন ১৪২৪ | Sunday, November 26, 2017

 

ছবি : সংগৃহীত

অনেক শিশুই শাকসবজি খাওয়ার বিষয়ে অনাগ্রহ দেখায়। তবে শিশুর বৃদ্ধির জন্য শাকসবজি খাওয়া বেশ জরুরি। শিশুকে শাকসবজি খাওয়ার বিষয়ে আগ্রহী করে তুলতে করণীয় কী,এ বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ২৯১২তম পর্বে কথা বলেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশু বিভাগের পরামর্শক ডা. আবু সাঈদ শিমুল।

প্রশ্ন : শাকসবজির প্রতি শিশুদের আগ্রহী করে তোলার জন্য কী করা যেতে পারে?

উত্তর : বাড়িতে মা-বাবা সবাইকে একসঙ্গে সবজি খেতে হবে। তারা যদি সবাই একসঙ্গে সবজি খায় তাহলে শিশুদের খাওয়ার আগ্রহ বাড়বে। ধরেন, সবজির বড়া করতে পারি, অন্যান্য মাংসের মধ্যে সবজি দিতে পারি। আসলে সব কিছু কিন্তু অভ্যাসের কারণে হচ্ছে। যেমন ধরুন, কোরিয়া বা জাপানের লোকেরা তো সাপ খায়, ব্যাঙ খায়। তাদের ছোট বাচ্চা এসে বলবে, ‘মা আমাকে তেলাপোকার স্যুপ দাও তো।’ অভ্যাস হয়ে যায়। সনাতন ধর্মে ব্রাহ্মণদের দেখুন, তারা তো সারাজীবন নিরামিষ খেয়ে যায়। তাদের বাচ্চারা কিন্তু নিরামিষই খাচ্ছে। তারা কিন্তু মুরগির মাংস চাচ্ছে না। সবকিছুই হলো অভ্যাস। আমরা যেভাবে অভ্যাস করাই, আমাদের বাচ্চা সেভাবে অভ্যস্ত হবে।

আরেকটি বিষয় হলো বাচ্চাকে যদি বাজারে নিয়ে যাই,তাকে যদি বলি কোন সবজিটা তোমার দরকার, তাহলে সে আগ্রহী হবে। সবজি যখন কাটব তাকে সঙ্গে রাখলে ভালো। রান্নার সময় যদি তাকে সঙ্গে রাখি তাহলে সে আগ্রহী হবে। এসব প্রক্রিয়াটার মধ্যে থাকলে তার একটা আগ্রহ জন্মাবে।

এক বছরের একটি বাচ্চা কিন্তু বাটি ধরতে পারে। তাকে প্লাস্টিকের বা ম্যালামাইনের বাটি দিয়ে নিজে নিজে খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে। দুই বছর বয়স হয়ে গেলে পরিবারের সবার সঙ্গে শিশুকে খেতে বসাতে হবে। বাচ্চাকে যত তাড়াতাড়ি এই বিষয়টি শেখাতে পারব, তত তাড়াতাড়ি আমাদের জন্য মঙ্গল। যেসব মা বাচ্চাকে খাইয়ে দেয়, প্রায় পাঁচ থেকে সাত বছর পর্যন্ত, তারাই বেশিরভাগ সময় বলেন বাচ্চারা খেতে চায় না।