ঢাকা, আগস্ট ১৬, ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৬:০০:৪৭

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

রবি ঠাকুরের ছবি দিয়ে সারার ইনস্টাগ্রামে অভিষেক নেপালকে হারিয়ে শেষ চারে বাংলাদেশের মেয়েরা বুদ্ধিমান মানুষের ৫ বৈশিষ্ট্য পনেরই আগস্টের কাল রাত্রীকে উপজীব্য করে প্রথম মঞ্চ নাটক ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’র উদ্বোধনী মঞ্চায়ন সোমবার পাকিস্তানকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছবি আঁকলেন দেশের ৫০ জন শিল্পী শামির ক্যারিয়ারে বাধা হতে পারেনি স্ত্রীর সঙ্গে শীতল সম্পর্ক বরেণ্য সংগীতশিল্পী রুনা লায়লাকে ‘ফিরোজা বেগম স্মৃতি স্বর্ণপদক ও পুরস্কার’ প্রদান অ্যালোভেরার আট পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তামিমের সেঞ্চুরিতে নয় বছর পর বিদেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ

শামির ক্যারিয়ারে বাধা হতে পারেনি স্ত্রীর সঙ্গে শীতল সম্পর্ক

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ১৮ শ্রাবণ ১৪২৫ | Thursday, August 2, 2018

 

ব্যক্তিজীবনের প্রভাবে পেশাগত জীবনে পরিবর্তন এসেছে অনেক ক্রিকেটারের। নারী নিয়ে সমালোচনা হওয়া যেন ক্রিকেটারদের জন্য নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে দেশের জার্সিতে সফল হওয়াটাই একজন খেলোয়াড়ের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ায়। ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামি ঠিক সে রকমই একজন উদাহরণ। মাঠের বাইরের জীবনে স্ত্রীর সঙ্গে ঠান্ডা সম্পর্ক চলার পরও ইংল্যান্ডের ১০০০তম টেস্টে মাঠে ফিরেছেন চিরচেনা সেই মোহাম্মদ শামি। তাঁর মতে, ক্রিকেটের জন্য ভালোবাসা তাঁকে টিকিয়ে রাখতে ভূমিকা রাখছে। প্রথম টেস্টের প্রথম দিনেই রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ৬০ রানে ৪ উইকেটের পাশাপাশি মোহাম্মদ শামির ২ উইকেট ইংল্যান্ডকে ২৮৫ রানে আটকে রাখতে সাহায্য করেছে।

কিন্তু দুর্ভাগ্য যেন মোহাম্মদ শামির পিছু ছাড়ছে না। মাস কয়েক আগে স্ত্রী হাসিন জাহান এই ২৮ বছর বয়সী ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে পারিবারিক নির্যাতন এবং বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ আনেন। আবার চোটে থাকার কারণে ফিটনেস ঠিক না থাকায় ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্টে বাদ পড়েন। শামি বলেন, ‘সাউথ আফ্রিকায় অনেক আগে খেলেছিলাম এবং এর পরে মাঠের বাইরের কিছু কারণ ছিল। মাঝে আমাকে অনেক লড়াই করতে হয়েছে; কিন্তু আমার চেষ্টা ছিল আমি যা ভালোবাসি এবং আমার কাছে যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ (ক্রিকেট), সেটা চালিয়ে যাব। আমি শুধু আমার কাজটা করে গেছি এবং জীবনে আর যা কিছু ছিল সবকিছু চুপ থেকে দেখেছি। যতই অসুবিধা আসুক না কেন, প্রথমে আমি ক্রিকেট খেলতে চেয়েছি এবং খেলে গেছি। তাঁর ফলাফল আজ আমাদের সামনে।’

২-১ ব্যবধানে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হারলেও সেই ম্যাচের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি মোহাম্মদ শামি ইংল্যান্ড টেস্টের প্রথম দিনে তাঁর দল এবং নিজের প্রচেষ্টা নিয়ে খুশি। এ ব্যাপারে শামি বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে এবং বোলিং ইউনিটের ওপর আমি খুশি। এ জন্যই আমি এত পরিশ্রম করেছি এবং আমরা এটাকে সফলভাবে বাস্তবায়িত করেছি। পারিবারিক জীবনে উত্থান-পতন থাকবেই। কিন্তু দেশের হয়ে খেলার সময় যে দায়িত্ব থাকে, সেটা যথাযথভাবে পালন করার মতো ভালো কিছু আর হতে পারে না। তাই আমি আজ অনেক খুশি।’