ঢাকা, মার্চ ২৬, ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৮:৩৩:০৯

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

কিমকে ‘পছন্দ’ করায় উ.কোরিয়ার বিরুদ্ধে আরোপিত নতুন নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা ট্রাম্পের ইয়েমেনে হাজার হাজার লোকের মৃত্যু : মানবিক সংকট চরমে মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ‘সব ধরনের পদক্ষেপের’ কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র : ট্রাম্প রাইস্টচার্চে হামলায় নিহত সকলকে সনাক্ত নিউজিল্যান্ডে নিষিদ্ধ হচ্ছে অ্যাসাল্ট ও সেমি-অটোমেটিক রাইফেলস নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলার শিকার ৩ বছরের শিশু থেকে ৭৭ বছরের বৃদ্ধ ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়ায় আকস্মিক বন্যায় অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু বাংলাদেশের উন্নতি সবসময়ই ভারতের জন্য আনন্দের বিষয় : মোদী ইসরাইল কেবলই ইহুদিদের জন্য : নেতানিয়াহু বিশ্বব্যাপী অস্ত্রের ক্রেতা হিসেবে প্রথম অবস্থানে সৌদি আরব

ভারতে গণপিটুনীতে নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ১৫

| ২৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | Sunday, June 10, 2018

নয়াদিল্লী : ভারতের পুলিশ গণপিটুনীতে দুই ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে।
ওয়াটসঅ্যাপে ছেলেধরার গুজবে ওই লোক দুটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।
রোববার দেশটির এক কর্মকর্তা একথা জানিয়েছেন। খবর এএফপি’র।
ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের উপজাতীয় অধ্যুষিত এলাকায় শুক্রবার রাতে শিশু অপহরণের সন্দেহে দুই ব্যক্তিকে তাদের গাড়ি থেকে টেনে হিচরে বের করে পিটিয়ে মেরে ফেলে উত্তেজিত জনতা। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার আগেই হতভাগ্য লোক দুজন গণপিটুনির শিকার হয়।
ইউটিউবের একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, রক্তাক্ত লোক দুজন উত্তেজিত জনতার কাছে প্রাণভিক্ষা চাইছে।
রাজ্যের গুয়াহাটি নগরীর বাসিন্দা দুই বন্ধু একটি পিকনিক স্পট থেকে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।
জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা মুকেশ আগারওয়াল বলেন, ‘এই ঘটনায় আমরা ১৫ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছি।’
ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘গত তিন-চারদিন ধরে হোয়াটসঅ্যাপে শিশু অপহরণকারীদের (ছেলেধরা) বিষয়ে গুজব ছড়িয়েছিল। তাই গ্রামবাসীরা ওই অপরিচিত দুজনকে ছেলেধরা হিসেবে সন্দেহ করে।’
ভারতে ভুয়া খবর ছড়িয়ে গণপিটুনীতে এ ধরনের বহু ঘটনার নজির রয়েছে।