ঢাকা, জুলাই ২৩, ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৫:৩৭:০২

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনা সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ায় আওয়ামী লীগের কৃতজ্ঞতা সমুদ্র বন্দরসমূহে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত যোগ্য, দক্ষ, কর্মক্ষম ও দেশপ্রেমিক নেতৃত্বের ওপর আস্থাশীল হতে সেনাবাহিনীর প্রতি নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ইস্কনের উদ্যোগে না,গঞ্জে শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের উল্টো রথযাত্রা অনুষ্ঠিত। মঞ্চ পুড়লেও রাষ্ট্রপতি যাচ্ছেন বাকৃবিতে ভারতে গেলেন এরশাদ খালেদা জিয়ার জ্বর ও ব্যথা কোনোভাবেই কমছে না,প্রেস ব্রিফিংয়ে রিজভী যারা বলে ‘নৌকা ঠেকাও’ তাদের লক্ষ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলেন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইতিহাসের সর্ববৃহৎ গণসংবর্ধনা দিল আওয়ামী লীগ রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি হলেন দেবদাস ভট্টাচার্য্য

বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচিত ছাত্র সংসদ থাকা জরুরি : সংস্কৃতিমন্ত্রী

দেশের খবর, প্রধান সংবাদ | ২০ আষাঢ় ১৪২৫ | Wednesday, July 4, 2018

image_printPrint

ঢাকা, ৪ জুলাই, ২০১৮ (বাসস) : সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় ও এর হলগুলোতে নির্বাচিত ছাত্র সংসদ থাকা জরুরী। এটি ছাড়া সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা-সহায়ক কর্মকান্ড সঠিকভাবে পরিচালিত হওয়ার সুযোগ নেই। তিনি বলেন, ‘এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে সংস্কৃতিচর্চা তেমনভাবে হয় না বললেই চলে। এর অন্যতম কারণ এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ নেই বা সেগুলো নিষ্ক্রিয় অবস্থায় রয়েছে।’
মন্ত্রী আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তিকে সামনে রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড রিসার্চ ইন আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস প্রণীত ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক ও শিক্ষা-সহায়ক কর্মকান্ড : সেকাল একাল’ শীর্ষক গ্রন্থের প্রকাশনা ও মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সময়ে সংস্কৃতি চর্চা শুধু নিছক বিনোদন ছিল না, এটি ছিল আন্দোলন-সংগ্রামের অন্যতম হাতিয়ার। তখন যে মানের সংস্কৃতিচর্চা হত, এখন তা দেখা যায় না।
তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংস্কৃতি চর্চা বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করা শুরু হয়েছে। ঢাকা ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে এ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ভবিষ্যতে এটি আরো সম্প্রসারণ করা হবে।
জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন-এর সভাপতি এ কে আজাদ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন কেন্দ্রের পরিচালক ও গ্রন্থটির সম্পাদক অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম।
উল্লেখ্য, ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সার্বিক পরামর্শে সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালামের সম্পাদনায় এ গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়েছে। এটি এই কেন্দ্র থেকে প্রকাশিত প্রথম গ্রন্থ।