ঢাকা, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ০৮:৩৩:১৯

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

বাংলাদশ মাইনরিটি ওয়াচের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস-২০১৮ পালিত। মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ বিএনপি নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে : আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতা অবলম্বন করছেন : ইনু রংপুর ৩ এ এরশাদের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ : জাপাকে ছাড় দিচ্ছেন না ৯ প্রার্থী ভিকারুননিসা স্কুলের নতুন অধ্যক্ষ হাসিনা বেগম বাদ পড়লেন মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ও ড. শামসুল মিথ্যা তথ্যে রাজস্ব ফাঁকি সম্পদশালীদের ব্যাংকে কোটিপতি ৭০০০০ আয়করে ১২০০০

বাংলাদেশের সামনে ২৫৬ রানের চ্যালেঞ্জ

দেশের খবর | ৫ আশ্বিন ১৪২৫ | Thursday, September 20, 2018

 

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে বসে আফগানিস্তান। সে ধারাবাহিকতায় দলীয় ১৬০ রানে সাত উইকেট হারিয়েছিল তারা। এই ইনিংসটা বেশিদূর নিয়ে যেতে পারবে না, এমনটা হয়তো অনেকেই ভেবেছিল। এশিয়া কাপ ক্রিকেটে সেই তারাই শেষ পর্যন্ত একটা বড় সংগ্রহই গড়েছে। নির্ধারিত ৫০ ওভারে তারা করে ২৫৫ রান।

আজ বৃহস্পতিবার আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মূলত অষ্টম উইকেট দৃঢ়তায় এই চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ দাঁড় করায় আফগানিস্তান। গুলবদীন নাঈব ও মোহাম্মদ রশিদ দুজনে মিলে অসাধারণ একটি জুটি গড়েন, অষ্টম উইকেটে তাঁরা করেন ৯৫ রান।

নাঈব ৩৮ বলে  ৪২ এবং  রশিদ ৩২ বলে ৫৭ রানের দুটি ঝড়ো ইনিংস খেলেন। শেষ দিকে তাঁরা বাংলাদেশের বোলারদের ওপর একরকম চড়াও হয়ে খেলেন।

অবশ্য আফগানিস্তান দলীয় মাত্র ১০ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারিয়ে বসে। প্রথমে ইহসানউল্লাহ (৮) সাজঘরে ফিরেন। পরে রহমতও (১০) আউট হন। দুজনেই পেসার আবু হায়দার রনির শিকার হন।

এরপর আফগানিস্তান যখন ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিল তখন বোলিংয়ে এসে সাফল্য পান সাকিব আল হাসান। মোহাম্মদ শেহজাদকে আউট করেন রনির ক্যাচ বানিয়ে। কিছুক্ষণ পর আফগানিস্তান অধিনায়ক আসগর আফগানকে (৮) সরাসরি বোল্ড করেন তিনি। বাঁহাতি অলরাউন্ডার ব্যক্তিগত তৃতীয় উইকেট তুলে নেন সামিউল্লাহ শেনওয়ারিকে ফিরিয়ে। তাঁর চতুর্থ শিকার মোহাম্মদ নবি।

সাকিব ও রনির পর পেসার রুবেল হোসেন আঘাত হেনেছেন আফগান ব্যাটিংয়ে। তিনি আফগানিস্তানের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান হাশমতুল্লাহ শহীদীর (৫৮) উইকেট তুলে নেন।

এরপর রশিদ ও নাঈব এসে যা করলেন তা বাংলাদেশের জন্য বড় চাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশেষ করে শেষ ১০ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে ৯৭ রান তুলেছে আফগানিস্তান।

সাকিব ৪২ রানে চারটি এবং রনি ৫০ রানে তিন উইকেট নেন। একটি উইকেট পান রুবেল।