ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ২৩:০৮:২৩

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

আজ শুভ নিত্যনন্দ ত্রয়োদশী একুশে পদক পেলেন জেলে পরিবারের হরিশংকর জলদাস ২১ মে থেকে সব বেসরকারি টিভি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যবহার করবে বাংলাদেশ-ইউএই ৪টি সমঝোতা স্মারক সই বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপে বৃষ্টিতে মুসল্লীদের দুর্ভোগ : মঙ্গলবার সকালে আখেরী মোনাজাত রাষ্ট্রপতির ভাষণ বর্তমান সরকারের উন্নয়নের দলিল : সরকারি দল মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান কোনোদিন ভুলবার নয় : তথ্যমন্ত্রী সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে দু’টি কমিটি গঠন করা হয়েছে : সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৪৯ জনকে চূড়ান্তভাবে বিজয়ী ঘোষণা আরব আমিরাতের প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীতে প্রধানমন্ত্রী

বইয়ের আবেদন কখনো ফুরাবে না : প্রধানমন্ত্রী

দেশের খবর, প্রধান সংবাদ | ১৯ মাঘ ১৪২৫ | Friday, February 1, 2019

 

অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বইয়ের আবেদন কখনো ফুরাবে না। বইমেলা শুধু বেচাকেনা নয়, বাঙালির প্রাণের মেলা। তিনি বলেন, যান্ত্রিকভাবে আমরা যতই ব্যবহার করি না কেন, হাতে একটা কিছু নিয়ে পড়া আর বইয়ের পাতা উল্টে উল্টে পড়া আলাদা ব্যাপার।’

আজ শুক্রবার বিকেলে বাংলা একাডেমিতে বইমেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাহিত্যে আফসান চৌধুরী, কবিতায় কাজী রোজী, প্রবন্ধ ও গবেষণায় সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ এবং কথাসাহিত্যে মোহিত কামালের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার বিকেলে বাংলা একাডেমিতে অমর একুশে বইমেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি ছোটবেলা থেকে দেখছি, বইয়ের পাতা উল্টে উল্টে পড়ার মজাটা আমরা পেতে চাই। তাই বইয়ের চাহিদা কখনোই কিন্তু শেষ হবে না, এটা আমরা বলতে পারি। তারপরও আমি বলব, অনলাইনে থাকলে পরে সারাবিশ্বের কাছে সেটা খুব দ্রুত পৌঁছে যায়। কাজেই ডিজিটাল লাইব্রেরি হওয়াও একান্তভাবে প্রয়োজন বলে আমি মনে করি।’

এ সময় বিশ্বসাহিত্যকে জানতে বাংলায় প্রচুর অনুবাদ করতে হবে জানিয়ে অন্য ভাষা থেকে বাংলায় প্রচুর অনুবাদের কাজ করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বাঙালি জাতি সারা বিশ্বে মাথা উঁচু করে চলবে, বাঙালির ইতিহাস ত্যাগের, এর মাধ্যমেই বাঙালির সব অর্জন সম্ভব হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করব। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করব।’