ঢাকা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১০:১৭:০৩

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

জাতীয় সংসদ নির্বাচন : হাসিনা সরকারের ওপর আস্থা রাখছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র খুলনায় মন্দির থেকে প্রতিমার স্বর্ণালংকার চুরি জাতিসংঘ অধিবেশনকালে দুটি পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারি বাসবভনে বন্দী ছিলাম, মিডিয়াকে বলা হয়েছে আমি অসুস্থ: সিনহা বাংলাদেশের সামনে ২৫৬ রানের চ্যালেঞ্জ রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে দীর্ঘ অবস্থানের কোন সুযোগ নেই : প্রধানমন্ত্রী সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত নারীর সুরক্ষায় প্রস্তাবিত আইনটি পাস হওয়া জরুরি : ডেপুটি স্পিকার পবিত্র আশুরা আগামীকাল জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদিতে প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনের উদ্দেশ্যে কাল ঢাকা ত্যাগ

দেশে কোনও অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা নেই: সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশের খবর | ২৭ আষাঢ় ১৪২৫ | Wednesday, July 11, 2018

সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বর্তমানে বাংলাদেশে কোনও অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা নেই বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বুধবার (১১ জুলাই) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে সরকারি দলের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানান।
মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে অনুপ্রবেশকারী বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিক (রোহিঙ্গা)দের মধ্যে ১১ লাখ ১৮ হাজার ৫৭৬ জনকে বায়োমেট্রিক নিবন্ধন করা হয়েছে। বর্তমানে অনিবন্ধিত কোনও রোহিঙ্গা বাংলাদেশে নেই। বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গা নাগরিকদের মধ্যে নতুন জন্ম নেওয়া সন্তানদের বায়োমেট্রিক নিবন্ধনের জন্য ওয়ার্ক স্টেশন বিদ্যমান আছে।’
জাসদের সংসদ সদস্য শিরীন আখতারের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে দেশের মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। মাদকবিরোধী অভিযানের ফলে জঙ্গিবিরোধী অভিযান ব্যাহত হবে না বরং আরও জোরদার হবে।
মাদকবিরোধী অভিযান বিষয়ে এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় মাদকবিরোধী অভিযান চলছে। প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার পরে দেশবাসী প্রধানমন্ত্রীর জন্য দু’হাত তুলে দোয়া করছেন। তারা বলছেন এই অভিযান যেন বন্ধ না হয়।’

এসএম আবুল কালাম আজাদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আইনি কারণে আমরা সীসা সেবনকারীদের আইনের আওতায় আনতে পারছি না। তবে সরকার মাদক আইন সংশোধনের যে উদ্যোগ নিয়েছে, সেখানে সীসাকে মাদক হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।’

সংরক্ষিত আসনের জাহান আরা বেগম সুরমার প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, দেশের বিভিন্ন কারাগারে বর্তমানে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রয়েছে একহাজার ৫৯৬ জন। এর মধ্যে নারী কয়েদি রয়েছে ৪৩ জন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠিত হয়।