ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ২৩:০৯:০৫

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

আমার বুকেও প্রতিশোধের আগুন জ্বলছে : নরেন্দ্র মোদি ভারত সেবাশ্রম সংঘের সহযোগিতায় হোমিওপ্যাথিক ক্যানসার হাসপাতাল জঙ্গি হামলার জবাব দিতে ভারতীয় বায়ুসেনার মহড়া অস্ত্রোপচার ছাড়াই একসঙ্গে ৭ সন্তানের জন্ম! জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় ধনী দেশগুলোকে ‘সদিচ্ছা’ প্রদর্শনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি খাতে যৌথ আঞ্চলিক সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশের পেন্টাগণের ভারপ্রাপ্ত প্রধানের আকস্মিক আফগানিস্তান সফর খাসোগির লাশ কোথায় তা জানে না সৌদি আরব কুম্ভমেলায় এসে ২৫০০ বিদেশীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ হাইতিতে মুদ্রাস্ফীতির প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ

তুরস্কে সাড়ে ১৮ হাজার সরকারি কর্মচারি বরখাস্ত

| ২৪ আষাঢ় ১৪২৫ | Sunday, July 8, 2018

আঙ্কারা : তুরস্ক সরকার নতুন এক ফরমানে পুলিশ, সৈনিক, শিক্ষাবিদসহ রাষ্ট্রের সাড়ে ১৮ হাজারের বেশি কর্মচারীকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়েছে। রোববার ১৮ হাজার ৬৩২ জনের চাকরিচ্যুত করার নতুন এই ফরমান প্রকাশ করা হয়। খবর এএফপি’র।
সরকারি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘জাতীয় নিরাপত্তা বিরোধী কার্যক্রম’ এর সঙ্গে যুক্ত সন্ত্রাসী সংগঠন এবং গোষ্ঠির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৮ হাজার ৯৯৮ জন পুলিশ কর্মকর্তাসহ ১৮ হাজার ৬৩২ জনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
ফরমানে সামরিক বাহিনীর ৩ হাজার ৭৭ জন সেনা, ১ হাজার ৯৪৯ জন বিমান বাহিনীর এবং ১ হাজার ১২৬ জন নৌবাহিনীর সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
এছাড়া বিচার মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে ১ হাজার ৫২ জন সরকারি কর্মচারি, আধা সামরিক বাহিনীর ৬৪৯ জন এবং ১৯২ জন কোস্ট গার্ড সদস্য, ১৯৯ জন শিক্ষাবিদকে বরখাস্ত করা হয়। তবে সেনাবাহিনী ও মন্ত্রণালয়ের ১৪৮ জন কর্মচারীকে পুনর্বহাল করা হয়।
২০১৬ সালের জুলাইয়ে এক সেনা অভ্যুত্থানের মধ্যদিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপে এরদোগানকে উৎখাতের চেষ্টার পর থেকে জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে। এর আগে জরুরি ফরমানের মাধ্যমে ১ লাখ ১০ হাজারেরও বেশি রাষ্ট্রীয় কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করা হয়।
এরদোগান প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার আগের মেয়াদে জরুরি অবস্থার মেয়াদ সাতবার নবায়ন করে, যা আগামী ১৯ জুলাই শেষ হওয়ার কথা।