ঢাকা, জুলাই ১৭, ২০১৮, ২ শ্রাবণ ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৩:৫১:১৯

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতলো ফ্রান্স মন্ত্রিসভায় মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক খসড়া আইন অনুমোদিত সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার সংস্থা সবরকম সহায়তা করবে : আইওএম মহাপরিচালক ইস্কনের উদ্যোগে না’গঞ্জে বর্ণাঢ্য সাজে জগন্নাথ দেবের বিশাল রথযাত্রা,শোভাযাত্রাসহ সেচ্ছাসেবক হিসেবে হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের সেববাদান । দেশে কোনও অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা নেই: সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাম্পাসে গমনাগমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দারিদ্র্য দূরীকরণ ও নারীর ক্ষমতায়নে পরিবার পরিকল্পনা গুরুত্বপূর্ণ : স্পিকার ইসলামের শিক্ষাকে সমুন্নত রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণে বাংলাদেশের মহাকাশ জয় সম্ভব হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষার ওপর জোর দিতে শিক্ষার্থীদের প্রতি নৌপরিবহন মন্ত্রীর আহবান

দেশের খবর | ৩০ মাঘ ১৪২৪ | Monday, February 12, 2018

ঢাকা : নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, সুশিক্ষিত নাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হলে শিক্ষাকে একটি শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করাতে হবে। তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষার ওপর জোর দিতে এবং মাদক, জুয়া, জঙ্গি ও বাল্যবিবাহ থেকে নিজেদেরকে দূরে রাখতে শিক্ষার্থীদের প্রতি তিনি আহবান জানান।
আজ ঢাকায় বিআইডব্লিউটিসি কার্যালয়ে বিআইডব্লিউটিসি’র কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের কৃতি সন্তানদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ আহবান জানান।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মফিজুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যন্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মোঃ আবদুস সামাদ, বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (প্রশাসন) প্রণয় কান্তি বিশ্বাস, বিআইডব্লিউটিসি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি আশিকুর রহমান এবং কর্মচাররি ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ মহসিন ভূইয়া।
শাজাহান খান বলেন, যুগোপযোগী শিক্ষার প্রসারে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে তথ্য প্রযুক্তি শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। ২০২১ সাল নাগাদ মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হলে নতুন প্রজন্মকে তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞানে সমৃদ্ধ হতে হবে।
আজ ২০১৬ অনুষ্ঠিত এস এস সি, এইচ এস সি ও সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ এবং ৪(এ) গ্রেড প্রাপ্ত ৮৭ জন সন্তানের মাঝে ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়।
বিআইডব্লিউটিসি ২০০৯ সাল থেকে সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারিদের কৃতি সন্তানদের বৃত্তি প্রদান করে আসছে। এ পর্যন্ত ৬৪৮ জন সন্তানদের মাঝে ২৫ লাখ টাকা বিতরণ করা হয়েছে।