ঢাকা, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, স্থানীয় সময়: ১৫:৫৯:০৯

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে ৬ ফল

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ৮ অগ্রহায়ন ১৪২৪ | Wednesday, November 22, 2017

 

আধুনিক ও ব্যস্ত শহুরে জীবনে ঘরে ঘরে ঢুকে পড়েছে ডায়াবেটিস। এক্ষেত্রে এখন আর বয়সেরও বাছবিচার নেই যেন। শিশু থেকে শুরু করে যুবক, বৃদ্ধ- সব বয়সের মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছেন। চিকিৎসকের পরামর্শে নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, এ রোগ নিরাময় অসম্ভব। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে তাই জীবনযাপনে আনতে হয় আমূল পরিবর্তন। সঙ্গে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পরিবর্তন আনা জরুরি হয়ে ওঠে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিচের ৬ ফল খেতেই হবে-

১. আপেল: আপেলে প্রচুর ফাইবার রয়েছে, যা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কম রাখার ক্ষেত্রে ভালো কাজ করে। এছাড়া আপেলে থাকা পেকটিন ব্লাড সুগার কম রাখতে সাহায্য করে।

২. বেরি: বেরি গ্লুকোজ ভেঙে তাকে শক্তিতে পরিণত করে। ফলে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা কমে। পাশাপাশি রেরির মধ্যে থাকা একটি উপাদান ইনসুলিন ক্ষরণে সাহায্য করে। এর ফলে শরীরে ইনসুলিন ক্ষরণ স্বাভাবিক থাকে।

৩. পেয়ারা: ডায়াবেটিস রোগীরা সাধারণত কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগেন। পেয়ারার মধ্যে প্রচুর ফাইবার থাকে, যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি টাইপ-২ ডায়াবেটিসের হাত থেকেও রক্ষা করতে পারে পেয়ারা।

৪. পেঁপে: পেঁপের মধ্যে প্রচুর পরিমাণ প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য খুবই উপকারী। রক্তে গ্লুকোজের মাত্র বেড়ে গেলে রোগীর হার্ট ও নার্ভের সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। নিয়মিত পেঁপে খেলে এ বিষয়টা অনেকটাই রুখে দেওয়া সম্ভব।

৫. জাম: জামে থাকা একটি বিশেষ উপাদান খাবারের স্টার্চকে ভেঙে দেয়। এর ফলে রক্তে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকে। জাম রোগীদের ঘনঘন প্রস্রাব ও তৃষ্ণার প্রবণতা অনেকটাই কমিয়ে দেয়।

৬. আমলকি: আমলকি ক্রোমিয়ামের একটি বড় উৎস। আর ক্রেমিয়াম অগ্নাশয়কে সুস্থ রাখতে খুবই কার্যকরী উপাদান।