ঢাকা, জুন ১৯, ২০১৮, ৫ আষাঢ় ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৬:২৭:০৮

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলতি মাসের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলে এটা হবে তাদের রাজনৈতিক আত্মহত্যা : তোফায়েল আহমেদ পবিত্র ঈদুল ফিতরের তারিখ নির্ধারণে শুক্রবার জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার পথকে আরো এগিয়ে নেয়ার বাজেট : সরকারি দল প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে দুবাই পৌঁছেছেন বিএনপি চাইলে খালেদা জিয়াকে সিএমএইচ নেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাতের দায়িত্বভার গ্রহণ সিরাজদিখানে প্রতিমা ভাঙচুর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুু পল্লীর বাড়িঘরে হামলা খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রাজনীতি করার কোন সুযোগ নাই : নাসিম

টেস্ট দলে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ, নেই সাকিব

দেশের খবর | ২৭ ভাদ্র ১৪২৪ | Monday, September 11, 2017

 

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য শক্তিশালী দল ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির সিমিং উইকেটের কথা ভেবে দলে পাঁচজন পেসার নেওয়া হয়েছে। স্পিনার কমিয়ে ব্যাটসম্যানের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। বিশ্রাম চাওয়ায় টেস্ট স্কোয়াডে নেই সাকিব আল হাসান। তবে শ্রীলঙ্কা সফরের দল থেকে বাদ পড়া মাহমুদউল্লাহকে দলে ফেরানো হয়েছে। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দলে জায়গা হয়নি তাঁর। তবে সাকিবের বিশ্রামটা আবার দলে জায়গা করে দিল তাঁকে।

টানা ম্যাচ খেলার কারণে কিছুদিনের জন্য বিশ্রাম চেয়েছেন সাকিব আল হাসান। এই কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের আগে বিসিবির কাছে ছুটির আবেদন করেন তিনি। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের আবেদনে সাড়া দিয়েছে বিসিবি। তাঁকে বিশ্রাম দিয়েই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দল ঘোষণা করা হয়েছে। সাকিবের অবর্তমানে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে দলে ভেড়াল টিম ম্যানেজমেন্ট।

এদিকে এক সিরিজ খেলেই আবার দল থেকে বাদ পড়লেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার নাসির হোসেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে ভালো খেললেও দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনের কথা বিবেচনা করেই তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

আগেই জানা ছিল দক্ষিণ আফ্রিকায় পাঁচ পেসার খেলাবে বাংলাদেশ। এই কারণে মুস্তাফিজ, তাসকিন ও শফিউলের সঙ্গে রুবেল হোসেন ও শুভাশীষকে দলে ভেড়ানো হয়েছে। তবে দলে জায়গা পেলেন না কামরুল ইসলাম রাব্বি।

অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের দায়িত্ব কমাতে অতিরিক্ত উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে লিটন দাসকে নেওয়া হয়েছে। এই জায়গায় এনামুল হক বিজয় বা নুরুল হাসান সোহানের কথা ভাবা হলেও শেষ পর্যন্ত লিটন দাসের ওপরই আস্থা রাখলেন নির্বাচকরা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে আহামরি পারফরম্যান্স করতে পারেননি সৌম্য সরকার ও ইমরুল কায়েস। ভালো ছন্দে না থাকলেও এই দুজনকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে রাখা হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার মতো কন্ডিশনে নতুনদের নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাতে চান না নির্বাচকরা। এ ছাড়া আস্থা রাখা হয়েছে মুমিনুল হকের ওপরও। চট্টগ্রাম টেস্টে হাফ সেঞ্চুরি করা সাব্বির রহমানও দলে জায়গা ধরে খেলেছেন।

সাকিব না থাকায় প্রধান স্পিনার হিসেবে তাইজুলকে রাখা হয়েছে। তার সঙ্গে হাত ঘোরাবেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এ ছাড়া খণ্ডকালীন স্পিনার হিসেবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও বেশ পরীক্ষিত। তাই বলা যায়, মুশফিকের নেতৃত্বে শক্তিশালী বাংলাদেশ দলই যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকায়।

বাংলাদেশ দল : তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শুভাশীষ রায়, রুবেল হোসেন, শফিউল ইসলাম।