ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ২৩:২৬:৩৯

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

আমার বুকেও প্রতিশোধের আগুন জ্বলছে : নরেন্দ্র মোদি ভারত সেবাশ্রম সংঘের সহযোগিতায় হোমিওপ্যাথিক ক্যানসার হাসপাতাল জঙ্গি হামলার জবাব দিতে ভারতীয় বায়ুসেনার মহড়া অস্ত্রোপচার ছাড়াই একসঙ্গে ৭ সন্তানের জন্ম! জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় ধনী দেশগুলোকে ‘সদিচ্ছা’ প্রদর্শনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি খাতে যৌথ আঞ্চলিক সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশের পেন্টাগণের ভারপ্রাপ্ত প্রধানের আকস্মিক আফগানিস্তান সফর খাসোগির লাশ কোথায় তা জানে না সৌদি আরব কুম্ভমেলায় এসে ২৫০০ বিদেশীর হিন্দু ধর্ম গ্রহণ হাইতিতে মুদ্রাস্ফীতির প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভ

জন্মাষ্টমীর পুজো করে নিজেই ছবি শেয়ার করলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়

| ২৫ ভাদ্র ১৪২৫ | Sunday, September 9, 2018

ফাইল ফোটো

দ্য ওয়াল ব্যুরোচার বছর আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এখনও ফি হপ্তায় বাড়ি বয়ে এসে চেক আপ করে যান ডাক্তারা। কিন্তু কে কার কথা শোনে! বছরে চার দিন পুরো উপবাস করার অনুমতি আগেই ডাক্তারদের থেকে নিয়ে রেখেছেন তিনি। জন্মাষ্টমীতেও পুজো না করে জলস্পর্শ করলেন না প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়।

তবে এ বারটা যেন অন্যরকম। এই প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি শেয়ার করলেন প্রণববাবু (পড়ুন, তাঁর দফতরের অফিসারদের অনুমতি দিলেন ছবিটি তাঁর নামে শেয়ার করতে)। পুরোহিত মশাই গোপালের পুজো করছেন। ধুতি আর চাদর গায়ে হাতজোড় করে চেয়ারে বসে রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তাঁর সরকারি বাসভবন দশ নম্বর রাজাজি মার্গের বাড়িতে হয়েছে পুজো।

বাড়িতে জন্মাষ্টমীর পুজোয় প্রণববাবু

প্রণববাবুর ধর্মনিরপেক্ষ রাজনৈতিক ভাবমূর্তি দেখে অনেকেই হয়তো ঠাওর করতে পারেন না, মানুষটি কায়মনবাক্যে খাঁটি ব্রাহ্মণ। সকালে চা খেয়ে, খবরের কাগজ পড়ে স্নান করে রোজ ঘণ্টাখানেক ধরে পুজো করেন প্রণববাবু। রীতিমতো চণ্ডীপাঠ করেন রোজ। তবে গোটা চণ্ডী রোজ পাঠ করেন না। বেছে বেছে তার কিছুটা করে অংশ পাঠ করেন তিনি।

প্রণববাবুর বাড়ির পুজো

কীর্ণাহারের বাড়িতে প্রণববাবুর দুর্গাপুজো করার ছবিতে এখন আর নতুনত্ব নেই। দেড় দশক আগে কেন্দ্রে দ্বিতীয় ইউপিএ জমানায় তিনি যখন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, তখন কীর্ণাহারের বাড়িতে পুজোতে বসতেই সংবাদমাধ্যমের ভিড় জমেছিল সেখানে। একবার দুর্গাপুজোর নবমীর দিন তৎকালীন মার্কিন বিদেশমন্ত্রী কন্ডোলিজা রাইস ফোন করেছিলেন প্রণববাবুকে। পুজো থেকে উঠে কন্ডোলিজার ফোন ধরেছিলেন প্রণব।

সে সব এখন ইতিহাস। বর্তমান হল, প্রণববাবু রয়েছেন প্রণববাবুতেই। ইদানীং পুজোআর্চায় কিছুটা বরং বেশিই সময় লাগছে তাঁর। আর যে চার দিন উপবাস করার জন্য ডাক্তারদের থেকে অনুমতি নিয়ে রেখেছেন, সেগুলি হল,-শিবরাত্রির দিন এবং দুর্গাপুজোর প্রথম তিন দিন।