ঢাকা, এপ্রিল ১৯, ২০১৯, ৫ বৈশাখ ১৪২৬, স্থানীয় সময়: ০২:৩৫:০৩

গ্রীষ্মে ঘড়ির কাঁটা এক ঘণ্টা বাড়ানোর বিপক্ষে ইইউ

| ১৩ চৈত্র ১৪২৫ | Wednesday, March 27, 2019

 

জ্বালানি সাশ্রয়ের জন্য ইউরোপজুড়ে গ্রীষ্মকালে ঘড়ির কাঁটা বাধ্যতামূলকভাবে এক ঘণ্টা এগিয়ে দেওয়ার যে নিয়ম চালু আছে, তা বন্ধ করার প্রস্তাবে সমর্থন দিয়েছে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট। গতকাল মঙ্গলবার এ ব্যাপারে সমর্থন জানায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) আইন প্রণেতারা।

এ প্রস্তাবের আওতায় ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর জন্য ২০২১ সাল থেকে দুটি পথ খোলা থাকবে। এর মধ্যে একটিকে বেছে নিতে হবে তাঁদের। হয় তারা ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তনের বর্তমান ব্যবস্থা চালু রাখবে, নয়তো বছরে দুইবার ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তনের এ নিয়ম বাদ দেবে। প্রস্তাবের পক্ষে পড়েছে ৪১০ ভোট এবং বিপক্ষে পড়েছে ১৯২ ভোট।

তা ছাড়া জরিপে দেখা গেছে, ৮৪ ভাগ ইউরোপীয়ই নিয়মটি বাদ দেওয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ইউরোপীয় কমিশন থেকে একটি মতামত জরিপ চালানো হয়। সেখানে অধিকাংশই ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তনের বিপক্ষে মতামত দেয়। আর এর পরই ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তনের বিপক্ষে সমর্থন জানায় ইইউ।

জ্বালানি খরচ কমাতে ২০০১ সাল থেকে ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তন বাধ্যতামূলক করা হয়। কিন্তু ঘড়ির কাঁটা পরিবর্তনে জ্বালানি খরচ সেই অর্থে কমেনি।

কারণ ইইউ মূলত চীন, রাশিয়া ও তুরস্কের সঙ্গে বাণিজ্য করে এবং দেশগুলোর কোনোটিতেই এ নিয়ম কার্যকর নয়। অন্যদিকে, বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক গবেষণায় ঘড়ির কাঁটার পরিবর্তনের কারণে মানব দেহের ওপর তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ার কথা বলা হয়েছে।