ঢাকা, মে ২৭, ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ০৩:২৪:৩৫

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

পলাশবাড়ীর দুলাল ঠাকুরের বিরুদ্ধে দেব প্রতিমার প্রতি অসন্মানের অভিযোগ:বিচারের দাবীতে ফেইসবুকে তুলপার। শেখ হাসিনাকে সম্মানসূচক ডিলিট প্রদান মাদকের গডফাদাররা আ’লীগের লোক হওয়ায় অধরা : বিএনপি আজ সম্মানসূচক ডি.লিট পাচ্ছেন শেখ হাসিনা নজরুলের আদর্শে অসাম্প্রদায়িক সমাজ গঠনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির ভারতীয় বিনিয়োগকে বাংলাদেশ স্বাগত জানায় : প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর রবীন্দ্রনাথের স্মৃতিবিজড়িত ঠাকুরবাড়ি পরিদর্শন বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক দৃঢ় ও অব্যাহত থাকবে : মমতা বাংলাদেশ ভবন উভয় দেশের সাংস্কৃতিক বিনিময়ের প্রতীক : মোদি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মজয়ন্তী পালিত

খালেদা জিয়ার চার মাসের জামিন

দেশের খবর, প্রধান সংবাদ | ২৮ ফাল্গুন ১৪২৪ | Monday, March 12, 2018

ঢাকা : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দন্ডিত হয়ে কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট।
বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ জামিনের আদেশ দেয়।
খালেদা জিয়ার পক্ষে আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে চার মাসের জামিন দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি এ সময়ের মধ্যে আপিল শুনানির জন্য সংশ্লিষ্ট শাখাকে পেপারবুক প্রস্তুত করতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পেপারবুক প্রস্তুত হওয়ার পর যেকোনো পক্ষ চাইলে আপিল শুনানির জন্য আদালতে মেনশন (উপস্থাপন) করতে পারবে।
আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী জয়নুল আবেদীন। জামিনের বিরোধীতা করেন রাষ্ট্রপক্ষে এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। অপরদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।
এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের জানান, তারা এ জামিন আবেদনের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করবেন।
গতকাল রোববার বেগম খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে আনা আবেদনে আজ আদেশের দিন ধার্য ছিল। গতকাল দুপুরে এ মামলার বিচারিক আদালতের নথি উচ্চ আদালতে পৌঁছে।
এর আগে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের দেয়া আদেশে বলা হয়, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার নি¤œ আদালতের নথি আসার পর এ মামলায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে আদেশ দেয়া হবে। ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিচারিক আদালতের দেয়া সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার করা আপিল শুনানির জন্য গত ২২ ফেব্রুয়ারি গ্রহণ (এডমিট) করে হাইকোর্টের এ বেঞ্চ। একই সঙ্গে বিচারিক আদালতে দেয়া জরিমানার দন্ডাদেশ স্থগিত করা হয়। পাশাপশি নিম্ন আদালতের নথি ১৫ দিনের মধ্যে পাঠাতে বিচারিক আদালতকে নির্দেশ দেয়া হয়।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদন্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে গত মঙ্গলবার দুপুরে ১ হাজার ২২৩ পৃষ্ঠার আপিল দায়ের (ক্রিমিনাল আপিল নং: ১৬৭৬/২০১৮) করা হয়। আপিল আবেদনে নিম্ন আদালতের পাঁচ বছরের দন্ড থেকে খালাস চেয়ে বিভিন্ন যুক্তি দেখানো হয়েছে। খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের অন্যতম সদস্য সিনিয়র এডভোকেট আব্দুর রেজাক খান ফাইলিং ল’ইয়ার হিসেবে এ আপিল মামলা দায়ের করেন।
গত ১৯ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের অনুলিপি পেয়েছেন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামানের কার্যালয় থেকে এ অনুলিপি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।