ঢাকা, জুলাই ১৭, ২০১৮, ২ শ্রাবণ ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৩:১২:৪৩

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতলো ফ্রান্স মন্ত্রিসভায় মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক খসড়া আইন অনুমোদিত সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে তার সংস্থা সবরকম সহায়তা করবে : আইওএম মহাপরিচালক ইস্কনের উদ্যোগে না’গঞ্জে বর্ণাঢ্য সাজে জগন্নাথ দেবের বিশাল রথযাত্রা,শোভাযাত্রাসহ সেচ্ছাসেবক হিসেবে হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের সেববাদান । দেশে কোনও অনিবন্ধিত রোহিঙ্গা নেই: সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাম্পাসে গমনাগমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়নি : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ দারিদ্র্য দূরীকরণ ও নারীর ক্ষমতায়নে পরিবার পরিকল্পনা গুরুত্বপূর্ণ : স্পিকার ইসলামের শিক্ষাকে সমুন্নত রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণে বাংলাদেশের মহাকাশ জয় সম্ভব হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

কেসিসি নির্বাচনে তালুকদার আব্দুল খালেক মেয়র নির্বাচিত

দেশের খবর, প্রধান সংবাদ | ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ | Wednesday, May 16, 2018

ঢাকা : খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।
বাসস’র খুলনা অফিস জানায়, এই সিটি কর্পোরেশনে ২৮৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৮৬টি কেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক নৌকা প্রতীকে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৮৫১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ১ লাখ ৯ হাজার ২৫১ ভোট।
সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান আজ বাসসকে জানান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের অধ্যক্ষ মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক হাত পাখা প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৩৬২ ভোট, জাতীয় পার্টির এসএম শফিকুর রহমান লাঙল প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৭২ ভোট এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবির মিজানুর রহমান বাবু কাস্তে প্রতীকে পেয়েছেন ৫৩৪ ভোট।
উৎসাহ-উদ্দীপনা আর উৎসবমুখর পরিবেশে আজ সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে, এরপর কেন্দ্রভিত্তিক ভোট গণনা শুরু হয়।
বাসস’র খুলনা অফিস জানায়, ২৮৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, লবণছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও হাজি মালেক দারুলসুন্নাহ দাখিল মাদ্রাসা, এই তিনটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ অনিয়মের অভিযোগে স্থগিত করা হয়।
এই নির্বাচনে মেয়র এবং কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিলিয়ে মোট ১৯১ জন প্রার্থী নির্বাচনের চূড়ান্ত লড়াইয়ে মাঠে ছিলেন। মেয়র প্রার্থী ৫ জন, ১৯টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১৪৮ জন কাউন্সিলর এবং ১০টি সংরক্ষিত আসনে ৩৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।
এ সিটিতে মোট ভোটার ৪ লাখ ৯৩ হাজার ৯৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২ লাখ ৪৮ হাজার ৯৮৬ ও নারী ২ লাখ ৪৪ হাজার ১০৭ জন।
এর আগে ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটার ছিল ৪ লাখ ৪০ হাজার ৫৬৮জন। এর মধ্যে ২ লাখ ১৬ হাজার ৯৭ জন নারী ও ২ লাখ ২৪ হাজার ৪৭১ জন ছিলেন পুরুষ ভোটার। ২০০৮ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ভোটার ছিল ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩৯৮ জন।