ঢাকা, ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ০৯:৪৭:৩৩

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

না,গঞ্জের বন্দরে সরস্বতী প্রতীমা ভাংচুর:ঘটনাস্থল পরিদর্শনে বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচ ও হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশন। সংরক্ষিত নারী আসনে ৪৯ জনের মনোনয়ন জমা স্কুল-কলেজের শিক্ষকরা না, কোচিং করাতে পারবেন ফ্রিল্যান্সাররা সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ রোহিঙ্গাদের স্বাস্থ্য ও খাদ্য সহায়তা দেয়া বাংলাদেশের জন্য বিশাল চ্যালেঞ্জ : প্রমীলা প্যাটেন টানা তৃতীয়বার সংসদ উপনেতা হলেন সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি কর্ণফুলী ট্যানেলের খনন কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী : সেতুমন্ত্রী বাংলাদেশ ও ভারতের বিমান বাহিনী প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় একযোগে কাজ করতে পারে : প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিসভায় হজ নীতি ও হজ প্যাকেজ অনুমোদিত

কুমিল্লার মেঘনায় ডাঃ দীনেশ দেবনাথের বাড়ীতে মন্দির ভাংচুরের ঘটনায় বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচের পরিদর্শন।

দেশের খবর | ৪ অগ্রহায়ন ১৪২৫ | Sunday, November 18, 2018

Image may contain: 8 people, including Manik Chandra Sharkar and DrDinesh Devnath, people sitting, outdoor and nature

গত ১৬/১১/১৮ তারিখ শুক্রবার, কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার ভাওরখোলা গ্রামের উত্তরপাড়ার হিন্দুদের ঐতিহাসিক।রাধা কৃষ্ণমন্দিরটির ভাংগচুরের ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচের প্রতিনিধি টিম। উক্ত প্রতিনিধি টিমের নেতৃত্ত্ব দেন সুপ্রিমকোর্টের জ্যেষ্ঠ্য আইনজীবী সংগঠনের সন্মানিত চেয়ারম্যান এডভোকেট রবীন্দ্র ঘোষ।

Image may contain: 9 people, including Manik Chandra Sharkar, people standing

পরিদর্শনকালে : রশিদ গংদের মন্দির ভাংগার বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তারা বিষটি অশ্বিকার করে বলেন এখানে কোন মন্দির ছিলনা, কিন্ত অপরদিকে মন্দির মন্দিরটি ভাংচুরের প্রমান মিলেছে বেশ কয়েকটি সংবাদপত্রসহ একটি ভিডিওতে উল্লেথ্য গত /১১/১৮ তারিখ রাতে হিন্দুদেররাধা কৃষ্ণমন্দিরটির ভাংগচুরের ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়

অন্যান্য প্রশ্নের জবাবে উভয় পক্ষ বলেছেন বলেছেন তার মধ্যে রশিদগং-রা বলেন আমরা এবাড়িতে অনেক দিন ধরে থাকি, তাই আমরা দখল সত্ত্বে মালিক, তবে ডা. দীনেশ দেবনাথ তার মায়ের নামে মিউটেশন দেখান এবং বলেন আমি সংখ্যালুঘু হওয়ায় ভূমি অফিসের সাথে যোগ সাজসে আমার মায়ের নামে থাকা মিউটেশন রশিদগং-রা বাতিল করে এবং বর্তমানে মিউটেশন ফিরে পেতে বিভাগীয় কমিশনারের নিকট আপিলাধীন আছে, আশা করি উচ্চ আদালত কর্তৃক ন্যায় বিচার পাব। সেময় উভয় পক্ষের কাগজ পত্রাদি যাচাই করে দেখেন এডভোকেট রবীন্দ্র ঘোষ

ঘটনাস্থলে প্রতিনিধি টিমের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত হলে রশিদ মিয়ার ছেলে শাহিন কবির,সভাপতি রবীন্দ্র ঘোষের সাথে খারাপ ব্যবহার করেন , সে সময় উপস্থিত পুলিশ শাহিন কবিরকে শান্ত  করেন।

পরিদর্শনকালে প্রতিনিধি টিমের সাথে ছিলেন বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচ,বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ফোরাম হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারী জেনারেল মানিক চন্দ্র সরকার,বাংলাদেশ মাইনরিটি ওয়াচের সহ-সভাপতি টিকে পান্ডে, সাংগঠিক সম্পাদক গৌতম রায় বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ফোরাম হিন্দু হেরিটেজ ফাউন্ডেশনের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বিজয় দাস কাব্য,মানবধিকার বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধো শংঙ্খনাথ তরুয়া, হিন্দু যুব ফোরামের মোহন দাসসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ

সবার কথা শুনে রবীন্দ্র ঘোষ বলেনআপনারা কোন বিবাদ করবেন না, বিবাদ মঙ্গল বয়ে আননা ,বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মীমাংসা করা যায় কিনা সে ব্যপারে সাব মিয়া মেম্বার, নাজির মেম্বার সেলিম মিয়াকে চেষ্টা করে দেখার জন্য তিনি অহ্বান জানান

এসময় স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ সাব মিয়া, নাজির মেম্বার, ভাই সেলিম বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ মেঘনা শাখার সভাপতি ডা. দীনেশ দেবনাথসহ গ্রামের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। পরিদর্শন কালে মেঘনা থানার পুলিশ সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেন