ঢাকা, জানুয়ারী ১৯, ২০১৮, ৬ মাঘ ১৪২৪, স্থানীয় সময়: ০৯:৩৫:০৭

কখন দাঁত ব্রাশ করা ভালো—নাশতার আগে, না পরে?

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ২১ পৌষ ১৪২৪ | Thursday, January 4, 2018

রাতে শোবার আগে, সকালে নাশতার পর দাঁত ব্রাশ করুন। ছবি : সংগৃহীত

স্বাস্থ্য সচেতন মানুষমাত্রই সকালে ঘুম থেকে উঠে দাঁত ব্রাশ করেন। অনেকেই আবার রাতের বেলা শোবার আগে দাঁত মাজেন। দাঁত ব্রাশ করা বা দাঁত মাজার মূল উদ্দেশ্য হলো দাঁত পরিষ্কার রাখা, দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাদ্যদ্রব্য দূর করা, যার কারণে দাঁত ক্ষয়রোগের কবল থেকে রক্ষা পাবে। কাজেই দাঁত যত বেশি সময় ধরে পরিষ্কার রাখা যায়, ততই মঙ্গল।

রাতে খাবার পর শোবার আগে দাঁত সারা রাত ধরে পরিষ্কার থাকে। সুতরাং শোবার আগে দাঁত ব্রাশ করা অবশ্যই স্বাস্থ্যসম্মত। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে সকালবেলা দাঁত মাজা প্রসঙ্গে।

অধিকাংশ লোকই সকালবেলা ঘুম থেকে উঠেই যে দাঁত মাজতে হবে, এ ধারণা ঠিক নয়। বিশেষ করে আগের রাতে যদি দাঁত ব্রাশ করা হয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে পরবর্তী ভোরে দাঁত মাজার গুরুত্ব অনেকটাই কমে যায়। এ ক্ষেত্রে ঘুম থেকে উঠে মুখ ধুয়ে ভালো করে কুলকুচি করে নেওয়াই যথেষ্ট। তাহলে কি সকালে দাঁত মাজার দরকার নেই, অবশ্যই আছে। তবে তা ঘুম থেকে উঠেই নয়। সকালে দাঁত মাজতে হবে নাশতা খাওয়ার পর। নাশতা খাওয়ার পর দাঁতের গায়ে খাবারের ক্ষুদ্রকণা জমে। তাই নাশতা খাওয়ার পর দাঁত মাজলে দাঁত অনেক সময় ধরে পরিষ্কার করে। সকালে ঘুম থেকে উঠেই যদি কেউ দাঁত মাজে, এরপর নাশতা করে, তাহলে নাশতা থেকে প্রাপ্ত কিছু খাদ্যকণা দাঁতের গায়ে লেগে যায়।

আর এই খাদ্যকণা দুপুরে খাবার গ্রহণের সময় আরো একটু ভারী ও পুরু হয়। কাজেই সকালে ঘুম থেকে উঠে মুখ ধুয়ে কুলি করে নাশতা করুন এবং তারপর দাঁত ব্রাশ করুন।

লেখক : ডা. সজল আশফাক-সহযোগী অধ্যাপক, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ।