ঢাকা, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮, ২ পৌষ ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৫:১৬:০৪

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

বাংলাদশ মাইনরিটি ওয়াচের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস-২০১৮ পালিত। মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার আপিল ইসিতে খারিজ বিএনপি নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করছে : আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সজাগ থাকতে সেনা কর্মকর্তাদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান মনোনয়ন না পাওয়া দলের প্রার্থীদের মহাজোট প্রার্থীর পক্ষে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের অনুরোধ শেখ হাসিনার নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতা অবলম্বন করছেন : ইনু রংপুর ৩ এ এরশাদের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ : জাপাকে ছাড় দিচ্ছেন না ৯ প্রার্থী ভিকারুননিসা স্কুলের নতুন অধ্যক্ষ হাসিনা বেগম বাদ পড়লেন মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ও ড. শামসুল মিথ্যা তথ্যে রাজস্ব ফাঁকি সম্পদশালীদের ব্যাংকে কোটিপতি ৭০০০০ আয়করে ১২০০০

ঐক্যফ্রন্ট লড়বে ধানের শীষে

দেশের খবর | ১ অগ্রহায়ন ১৪২৫ | Thursday, November 15, 2018

 

Image result for নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। ফাইল ছবি

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। ফাইল ছবি

পাঁচটি রাজনৈতিক দলের মোর্চা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচনী প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে ভোটের মাঠে লড়াই করবে বলে নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মতিঝিলে ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে এক বৈঠক শেষে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না সাংবাদিকদের এ কথা জানান। তিনি বলেন, ‘আজকে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আমাদের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আমরা সবাই একটি কমন প্রতীকে নির্বাচন করব। সেই কমন প্রতীক হবে ধানের শীষ।’

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিকদের মধ্যে আসন বণ্টন হয়েছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে মান্না বলেন, ‘হয়নি। তবে আমরা একটা যাত্রা শুরু করেছি। আমাদের সবার মার্কা হবে ধানের শীষ।’

নয়াপল্টনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী নেতাকর্মীদের ওপর গতকাল বুধবার পুলিশি হামলার নিন্দা জানিয়ে মান্না বলেন, ‘আমরা খুব স্পষ্ট করে বলতে চাই যে সরকার যেকোনোভাবে বিরোধী দল যাতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে, তার জন্য সব রকমের উসকানি দিচ্ছে। আমরা এই উসকানি প্রতিরোধ করব।’

‘আমরা ধৈর্য ধরব। আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, সব ধরনের বাধা উপেক্ষা করে আমরা নির্বাচন করব। মানুষের মধ্যে যে সাড়া দেখতে পাচ্ছি তাতে আমাদের বিশ্বাস, এই নির্বাচনে একটা ভোট বিপ্লব হবে স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে।’

ঐক্যফ্রন্ট বিজয়ী হলে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন—আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, ‘এটা নিয়ে তাঁর এত দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। আমরা ভোটের ফল দেখার পর নিজেরাই ঠিক করে নিতে পারব, কে প্রধানমন্ত্রী হবেন।’

বিএনপির নয়াপল্টনের কার্যালয়ে গতকালের সহিংসতার সমালোচনা করে মান্না আরো বলেন, ‘আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে, পুলিশের দুটি গাড়ি ভাঙা এবং ওইখানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা, তার পেছনে সরকারি দলের লোকজনের হাত আছে।’

মান্না আরো বলেন, ‘অসমর্থিত কিন্তু বিশ্বাসযোগ্য খবরে প্রকাশ যে, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের হেলমেট পরে ওই যে কোটা ও নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের সময়ে হেলমেট বাহিনীকে দেখেছিলাম, সেই হেলমেট বাহিনী সেখানে তৎপর ছিল। আমরা এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করছি।’

ঐক্যফ্রন্টের প্রধান নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরো অংশ নেন বিএনপির মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা মহসীন মন্টু, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন প্রমুখ।