ঢাকা, মার্চ ২৪, ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ২৩:৫৩:৫৫

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের নকশা দেখলেন প্রধানমন্ত্রী গোয়েন্দা নজরদারিতে নায়িকা শিমলা তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিল চলতি বছরেই : সচিব সঙ্গীত শিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহর দাফন সম্পন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামে বাংলাদেশে পাকিস্তানের গণহত্যার বিষয়টি তুলে ধরবে জাতিসংঘ কাল ভয়াল ২৫ মার্চ, জাতীয় গণহত্যা দিবস ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পর্যায়ের বৈঠক ১ এপ্রিল কাল স্বাধীনতা পুরস্কার দেবেন প্রধানমন্ত্রী প্যারেড স্কোয়ারে সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করলেন জাতিসংঘ উপদেষ্টা

উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ তরুণদের সামনে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

দেশের খবর | ২৫ কার্তিক ১৪২৫ | Friday, November 9, 2018

উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ তরুণদের সামনে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী বলেন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জন এবং জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য দেশের তরুণদের সামনে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দিয়েছে। এছাড়া তিনি বলেন, বাংলাদেশ যখন অর্থনৈতিক অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে, তখন বাংলাদেশিদের জন্য ইংরেজি ভাষা শেখার বিষয়টি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

মাহমুদ আলী শুক্রবার কথা বলছিলেন দেশে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে। এ সময় তিনি বলেন, দ্বিতীয় ভাষা হিসাবে ইংরেজি শেখার বিষয়টি এখন অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি গুরুত্ব পাওয়ার দাবি রাখে।

‘ইংলিশ ফর স্পেসিফিক পারপাজেস: কুড উই বি মোর স্পেসিফিক’ শীর্ষক দিনব্যাপী এই সম্মেলনে যোগ দিতে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে জড়ো হয়েছেন বিভিন্ন দেশের তাত্ত্বিক, পেশাজীবী, শিক্ষক, বিশেষজ্ঞ, এনজিওকর্মী, সরকারি কর্মকর্তা ও করপোরেটের অংশীজনরা।

বাংলাদেশের জন্য যে সুযোগ এসেছে তা ইংরেজি ভাষাটা ঠিকমত জানা না থাকলে তা কাজে লাগানো কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেন মাহমুদ আলী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের দিকে যাওয়ায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বড় পরিসরে কাজের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সেজন্যও ‘প্রয়োজনভিত্তিক’ ইংরেজি জানা তরুণদের জন্য জরুরি হয়ে পড়েছে।

চাকরির বাজারের জন্য ইংরেজি ভাষার ওপর যে ধরনের দখল দরকার, তার সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ে শেখা ইংরেজির বিপুল ব্যবধান রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এই দূরত্ব ঘোচাতে চিকিৎসা, প্রকৌশল, কূটনীতিসহ আলাদা আলাদা পেশার জন্য উপযোগী করে ইংরেজি শিক্ষার আলাদা প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার ওপর জোর দেন তিনি।