ঢাকা, আগস্ট ১৬, ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫, স্থানীয় সময়: ১৫:৫৭:২১

এ পাতার অন্যান্য সংবাদ

রবি ঠাকুরের ছবি দিয়ে সারার ইনস্টাগ্রামে অভিষেক নেপালকে হারিয়ে শেষ চারে বাংলাদেশের মেয়েরা বুদ্ধিমান মানুষের ৫ বৈশিষ্ট্য পনেরই আগস্টের কাল রাত্রীকে উপজীব্য করে প্রথম মঞ্চ নাটক ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’র উদ্বোধনী মঞ্চায়ন সোমবার পাকিস্তানকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ছবি আঁকলেন দেশের ৫০ জন শিল্পী শামির ক্যারিয়ারে বাধা হতে পারেনি স্ত্রীর সঙ্গে শীতল সম্পর্ক বরেণ্য সংগীতশিল্পী রুনা লায়লাকে ‘ফিরোজা বেগম স্মৃতি স্বর্ণপদক ও পুরস্কার’ প্রদান অ্যালোভেরার আট পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া তামিমের সেঞ্চুরিতে নয় বছর পর বিদেশের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ

ঈদে থাকছেন শাকিব, জিৎ পারবেন তো?

স্বাস্থ্য ও বিনোদন | ১৩ বৈশাখ ১৪২৫ | Thursday, April 26, 2018

 

আর প্রায় দুই মাস পরই ঈদুল ফিতর। আর এই ঈদকে ঘিরে চলছে চলচ্চিত্র নির্মাণ ও মুক্তির তোড়জোড়। প্রতিবারের মতো এবারের ঈদেও মুক্তি পাবে বাংলাদেশের সুপারস্টার শাকিব খানের ছবি। জানা গেছে, তাঁর ‘পাঙ্কু জামাই’, ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া, নোয়াখাইল্লা মাইয়া’, ‘ভাইজান’ ও ‘সুপারহিরো’—এই চারটি ছবির মধ্যে চারটিই অথবা অন্তত দুটি ছবি মুক্তি পাবে। অন্যদিকে এই ঈদেই বাংলাদেশে মুক্তি পেতে পারে কলকাতার নায়ক জিতের ছবি ‘সুলতান’। জিতের সঙ্গে এই যৌথ প্রযোজনার ছবিতে নায়িকা থাকবেন বাংলাদেশের নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম।

‘সুলতান’ ছবির বাংলাদেশ অংশের প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ জানিয়েছেন, এই ঈদেই এই ছবিটি মুক্তি দিতে চান তাঁরা। তিনি বলেন, ‘আগামী রোজার ঈদকে কেন্দ্র করে আমরা ছবিটি নির্মাণ করছি। এরই মধ্যে যৌথ প্রযোজনার প্রিভিউ কমিটি ও মন্ত্রণালয় থেকে ছবিটি নির্মাণ করার অনুমতি পেয়েছি।’

যৌথ প্রযোজনার নতুন নীতিমালা মেনেই ছবিটি তৈরি হচ্ছে বলেও জানান আবদুল আজিজ। এদিকে, যৌথ প্রযোজনাবিষয়ক প্রিভিউ কমিটির সদস্য মুশফিকুর রহমান গুলজারও নিশ্চিত করেছেন, ‘সুলতান’ নির্মাণের জন্য তাঁরা অনুমতি দিয়েছেন। গুলজার এনটিভি অনলাইনকে বলেন, “গত ২৪ তারিখ আমরা যৌথ প্রযোজনার প্রিভিউ কমিটি সবকিছু যাচাই-বাছাই করে কলকাতার জিৎ অভিনীত ‘সুলতান’ ছবিটি নির্মাণের জন্য অনুমতি দিয়েছি। এরই মধ্যে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে ছবিটি নির্মাণের অনুমতি দিয়েছে। এখন শুধু শুটিংয়ের অনুমতি পেলেই তাঁরা ছবির কাজ শুরু করতে পারবেন। আগামী দুদিনের মধ্যে শুটিংয়ের জন্য তারা অনুমতি পেয়ে যাবেন বলে আমার মনে হয়।”

একটি বাণিজ্যিক ছবির পুরোটা শেষ করতে কমপক্ষে তিন মাস সময় লাগে। কিন্তু ঈদে মুক্তি দিতে হলে দুই মাসেরও কম সময়ের মধ্যে কি এই ছবি শেষ করা সম্ভব? যেহেতু এখনো শুটিংয়ের অনুমতিই দেওয়া হয়নি ‘সুলতান’কে? এ বিষয়ে গুলজার বলেন, ‘প্রিভিউ কমিটি অনুমতি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কিছু বিষয়ে পরামর্শ দিয়ে থাকি। সেই হিসেবে আমরা ছবির শুটিংয়ের জন্য ৭৫ দিন ধার্য করে দিয়েছিলাম। কিন্তু মন্ত্রণালয় মাত্র ৩০ দিনের মধ্যে ছবিটি শেষ করার অনুমতি দিয়েছে। তার মানে যেদিন থেকে শুটিংয়ের অনুমতি পাবে, তার ৩০ দিনের মধ্যে তারা ছবি শেষ করে বাংলাদেশে প্রদর্শনের জন্য জমা দিতে পারবে।’

গুলজার আরো বলেন, ‘আমি চলচ্চিত্র যতটুকু বুঝি, তাতে একটা ছবি নির্মাণ করতে কমপক্ষে ৮০ দিন সময় প্রয়োজন। এখন তারা ৩০ দিনের ভেতর কীভাবে ছবি শেষ করবেন, আমি তা বলতে পারব না।’

সুলতান ছবিটি পরিচালনা করবেন কলকাতার পরিচালক রাজা চন্দ। ছবিটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছে কলকাতার নায়ক জিতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জিৎ’স ফিল্ম ওয়ার্কস ও বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া।